কম্পিউটারের ফাইল স্থায়ীভাবে ডিলিট করার উপায়

Written by

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে বাড়িতে কম্পিউটার নেই বা এটি ব্যবহার করেন না এমন মানুষ খুব কমই আছে। অফিসিয়াল কাজ বা ব্যক্তিগত কাজ সব ক্ষেত্রেই বেশ উপকারি বস্তুটির নাম কম্পিউটার। কখনে কখনে ব্যবহার করতে করতে অনেক ফাইল প্রয়োজন হয় মোছার অথবা ব্যক্তিগত কিছু ফাইল আপনি চাচ্ছেন না কেউ দেখুক বা ব্যবহার করুক। তখনই প্রয়োজন হয ফাইলটি মুছে ফেলার । কিন্তু আপনি জানেন কি আপনার ঐ মোছা ফাইলটি কেউ চাইলেই আবার রিকভারি করতে পারে।

আজ আমরা টেকজুমের পাঠকদের জন্য এর সমাধান তুলো ধরব। যাতে কেউ চাইলেই আপনার মুছে ফেলা ফাইল রিকভারি বা উদ্ধার করতে না পারে।

ধরুন, আপনার কম্পিউটারের কোনও ড্রাইভে ‘রোহান’ নামের কোনও ফাইল সেভ করা আছে। সাধারণ ভাবে এটি ‘ডিলিট’ অপশনে ক্লিক করলে ফাইলটি মুছে ‘রিসাইকেল বিন’-এ চলে যাবে এবং ফাইলের লিঙ্ক মুছে যাবে। কিন্তু কম্পিউটার মেমরিতে ফাইলের অস্তিত্ব থেকে যাবে।

কিন্তু বাজারে অনেক ডেটা রিকভারি সফটওয়্যার পাওয়া যায়, যেগুলি দিয়ে সহজেই ওই ডিলিট করা ফাইল পুনরুদ্ধার করা সম্ভব। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের ক্ষেত্রে ‘রিসাইকেল বিন’ এবং ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমের ক্ষেত্রে ‘ট্র্যাস ক্যান’ রয়েছে যেখানে ডিলিট করা ফাইলগুলো দেখা যায়। ‘রিসাইকেল বিন’ বা ‘ট্র্যাস ক্যান’-এ গিয়ে ডিলিট করা ফাইলের উপর রাইট ক্লিক করলেই ‘রিস্টোর’ অপশন দেবে। সেখান থেকে সহজেই ফাইল পুনরুদ্ধার করা সম্ভব।

তা হলে কী করবেন?

প্রথমত: আপনার কম্পিউটারের ‘রিসাইকেল বিন’-এ বিনে গিয়ে রাইট ক্লিক করুন। ‘এম্পটি রিসাইকেল বিন’ বলে একটা অপশন দেবে। সেখানে ক্লিক করলেই সেভ হওয়া ডিলিটেড ফাইলগুলো মুছে যাবে।

আপনি চান না আপনার কোনও ফাইল বা ডেটা ‘রিসাইকেল বিন’ বা ‘ট্র্যাস ক্যান’-এ সেভ হোক। কী করবেন? যে ফাইলটি ডিলিট করতে চাইছেন তার উপর ক্লিক করুন। এ বার, উইন্ডোজের ক্ষেত্রে ‘সিফট+ডিলিট’ এবং ম্যাকের ক্ষেত্রে ‘কম্যান্ড+ডিলিট’ ‘কি’ প্রেস করলেই ফাইলটি একেবারে ডিলিট হয়ে যাবে।

ম্যাকের ক্ষেত্রে ‘কম্যান্ড বাটন’-এ প্রেস করে রেখে ‘ট্র্যাস ক্যান’-এ রাইট ক্লিক করুন। ‘সিকিউরিটি এম্পটি ট্র্যাস’ অপশন দেবে। সেখানে ক্লিক করলেই যে ফাইলটি ডিলিট করতে চাইছেন সেটি ড্রাইভ থেকে পুরোপুরি ডিলিট হয়ে যাবে।

দ্বিতীয়ত: এই পদ্ধতিতে ডিলিটেড ফাইলও অনেক সময় অ্যাডভান্সড-গ্রেড ডেটা রিকভারি সফটওয়্যার দিয়ে পুনরুদ্ধার করা সম্ভব। তা হলে কী করবেন? আপনার হার্ড ড্রাইভ ‘ড্রিল’ করুন। ড্রাইভটি নষ্ট হয়ে যাবে আর আপনার ফাইলও চিরতরে মুছে যাবে।

Article Tags:
· ·

Leave a Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares