আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন থেকে সরে যাবে রাশিয়া

Written by

২০২৫ সালে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস) প্রকল্প থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাশিয়া। এ ব্যাপারে বিদেশী অংশীদারদেরও অবগত করা হয়েছে। জেষ্ঠ্য এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা।

১৯৯৮ সালে রাশিয়া ও আমেরিকার মহাকাশ সংস্থাগুলোর যৌথ উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস) চালু হলেও দুই দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক কুটনৈতিক সম্পর্কের অবনতির প্রভাব মহাকাশ প্রকল্পেও পড়েছে। এদিকে ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলা এই কার্যক্রমের সমাপ্তি ২০৩০ সালে ঘটবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গত ১২ এপ্রিল রাশিয়া দেশটির বৈমানিক ও নভোচারীর ইউরি গ্যাগারিনের প্রথম মহাকাশ ভ্রমণের ৬০ বছর পূর্তি উদযাপন করেছে। তিনিই প্রথম মানুষ হিসেবে ভস্টক নভোযানে করে মহাকাশ ভ্রমণ ও পৃথিবীর কক্ষপথ প্রদক্ষিণ করেন। এ দিনটি উপলক্ষ্যে এক ভাষণে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন পরবর্তী দশকের পরিকল্পনা হিসেবে নতুন মহাকাশ উন্নয়ন কৌশলের ঘোষণা দিয়েছেন।

সম্প্রতি দেশটির উপ-প্রধানমন্ত্রী ইউরি বোরিসভ টিএএসএস নিউজ এজেন্সিকে জানান, ২০২৫ সাল থেকে তারা আর আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন প্রকল্পের কার্যক্রমে অংশ নেবে না। এই সিদ্ধান্তের কথা এই প্রকল্পের অন্যান্য বিদেশী অংশীদারদের জানানো হয়েছে। তিনি বলেন, যেকোনো ঝুঁকি এড়াতে স্টেশনটিতে আমাদের কারিগরি পর্যবেক্ষণ জরুরি। এই পরিদর্শনের পর প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

স্থানীয় সংবাদ সংস্থা ইন্টারফ্যাক্সকে রাশিয়ার মহাকাশ সংস্থা রোসকোমস জানিয়েছে, ২০২৪ সালে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের সঙ্গে চুক্তি শেষ হবে। এর পর (২০২৫ সাল থেকে) নিজস্ব অরবিটিং আউটপোস্ট বা মহাকাশ প্রদক্ষিণ ফাঁড়ি গঠনের পরিকল্পনা রয়েছে। এর জন্য পরবর্তী প্রজন্মের জাতীয় অরবিটাল পরিষেবা কেন্দ্র করা হবে। এই স্পেস স্টেশনটির জন্য খরচ হবে ৬ বিলিয়ন ডলার।

Article Categories:
খবর

Leave a Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares